আগের চেয়ে দ্রুতগতিতে ছ’ড়িয়ে প’ড়ছে করোনা ভাইরাস:বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

দুনিয়াব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস আগের চেয়ে দ্রুতগতিতে ছড়িয়ে পড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান ড. টেড্রস অ্যাডহানম গেব্রেইয়েসুস। সোমবার জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা বলেছেন।

তিনি বলেন, করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১ থেকে ১ লাখে পৌঁছাতে ৬৭ দিন সময় লেগেছে। দ্বিতীয় একলাখ আক্রান্ত হতে সময় লেগেছে ১১ দিন। কিন্তু তৃতীয় একলাখ আক্রান্ত হতে সময় লেগেছে মাত্র ৪ দিন।

জি২০ সম্মেলনে রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের একসঙ্গে প্রতিরোধ সরঞ্জাম উৎপাদনে কাজ করার আহ্বান জানাবেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, জি২০ দেশগুলোর ঐক্য আমাদের প্রয়োজন। কারণ বিশ্বের মোট জিডিপির ৮০ শতাংশ এসব দেশের। স্বাস্থ্যকর্মীদের রক্ষাকে যদি আমরা অগ্রাধিকার না দেই তাহলে অনেক মানুষের মৃত্যু হবে। কেননা যারা তাদেরকে সেবা দিয়ে জীবন রক্ষা করতে পারতেন তারাই অসুস্থ থাকবেন।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার হিসেব মতে, ২৬ মিলিয়নের বেশি স্বাস্থকর্মী করোনা রোগীদের চিকিৎসা দেবেন। এর আগ শুক্রবার সংস্থাটির কর্মকর্তারা সতর্কতা উচ্চারণ করে বলেছিলেন, করোনার বিস্তারে মাত্র কয়েক সপ্তাহে বিশ্বের স্বাস্থ্য ব্যবস্থাকে নড়বড়ে করে দিতে পারে।

উল্লেখ্য বিশ্বে করোনাভাইরাসে মৃত মানুষের সংখ্যা ১৪ হাজার ছাড়িয়েছে। গত ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশে এই ভাইরাসের আক্রমণ দেখা যায়। করোনাভাইরাসের নতুন কেন্দ্রস্থল ইউরোপ। এই ভাইরাসে টালমাটাল ইতালি। চীনের বাইরে করোনা ১৩ গুণ বৃদ্ধি পাওয়ার প্রেক্ষাপটে ১১ মার্চ পৃথিবীব্যাপী মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

করোনাভাইরাস বৈশ্বিক মহামারিতে এ পর্যন্ত বিশ্বের ১৯২ টি দেশ ও অঞ্চলে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬৪৬ জন। মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১৫ হাজার ৩১৭ জনের। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১ লাখ ৩৪৫ জন।

আরব আমিরাত – সৌদি আরবের প্রশংসায় পঞ্চমুখ ইভানকা ট্রাম্প !

নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় উল্লেখযোগ্য সংস্কার পদক্ষেপ নেয়ায় সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ইভানকা ট্রাম্প।বিদেশ ভ্রমণে নারীদের অনুমোদন ও পুরুষ আত্মীয়দের অনুমতি ছাড়াই পাসপোর্ট ইস্যুতে আইনে পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। নারী স্বাধীনতার এই অগ্রগামী পদক্ষেপের জন্য সৌদি আরবকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি। দুবাইতে রোববার নারী উদ্যোক্তা ও আঞ্চলিক নেতাদের এক সমাবেশে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই কন্যা ও উপদেষ্টা বলেন, আমরা জানি, যখন নারীরা স্বাধীন থাকেন, তখন তারা সফল হন, পরিবারে সমৃদ্ধি ঘটে, সম্প্রদায়গুলো বিকশিত হয় ও রাষ্ট্রগুলোও আরও শক্তিশালী হয়।

এর আগে ২০১৮ সালে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি আরব। দেশটির ভিশন ২০৩০ সামনে রেখে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে। মূলত তেল ও গ্যাসের ওপর থেকে নির্ভরশীলতা কমিয়ে অর্থনীতিতে আরও বৈচিত্র আনতে এসব পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি।এতে ব্যক্তিগত খাতের প্রবৃদ্ধি ও উদ্যোক্তা বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের উত্থানের সঙ্গে সঙ্গে সৌদিতে এসব পরিবর্তন ঘটছে।কেবল সৌদি আরবই না, অন্যান্য আরব দেশের পরিবর্তনের দিকেও আভাস দিয়েছেন ট্রাম্প কন্যা।৩৮ বছর বয়সী এই নারী বলেন, কর্মক্ষেত্রে বৈষ;;ম্যের বি;;রুদ্ধে আইনপ্রণয়ন করেছে বাহরাইন।

কর্মক্ষেত্রে রাতে নারীদের কাজের সক্ষমতার ওপর বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে জর্ডান।
নারীদের ভূমি অধিকার বাড়িয়েছে মরোক্কো। আর গৃহ;;সহিংসতার বি;;রুদ্ধে নতুন আইন করেছে তিউনেশিয়া। তবে আরও বহু কাজ বাকি আছে বলে মনে করেন এই তিন সন্তানের জননী। ইভানকা বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে বর্তমানে গড়ে একজন পুরুষের তুলনায় নারীর অধিকার অর্ধেক।

উড্ডয়নের সময় ভারতের যাত্রীবাহী বিমানে ভ’য়াবহ আ’গুন

মঙ্গলবার বেঙ্গালুরু থেকে আহমেদাবাদগামী গো এয়ারের একটি বিমানে এই ঘটনা ঘটে বলে দেশটির বার্তাসংস্থা এএনআই জানিয়েছে।এক প্রতিবেদনে তারা জানায়, বিমানটির আ’গুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে এবং সেটিকে রানওয়ে থেকে সরানো হয়েছে। এছাড়া বিমানটির যাত্রী ও ক্রুরাও সবাই নিরাপদে আছেন।এদিকে বিমানের ইঞ্জিনে আগুন লাগার ঘটনা স্বীকার করেছে
গো এয়ার কর্তৃপক্ষ। এক বিবৃতিতে তারা জানায়, গো এয়ারের জি৮ ৮০৮ ফ্লাইটের ডান ইঞ্জিনে আ’কস্মিক যান্ত্রিক ত্রু’টি হওয়ার কারণে উড্ডয়ের সময় আ’গুন ধরে যায়। তবে আ’গুন ছড়িয়ে পড়ার আগেই সেটি নিয়ন্ত্রণে আনা হয়েছে।তারা আরো জানায়, বিমানের যাত্রীরা সবাই নিরাপদে আছেন। তাদেরকে আরেকটি বিমানে করে নির্ধারিত গন্তব্যস্থলে পৌঁছে দেয়া হবে।

মা’রা গেলেন উহান হাসপাতালের পরিচালক :করোনা ভাইরাস

ভয়াবহ করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়া’ইয়ে চিকিৎসক-নার্সদের সঙ্গে নি’র্ঘুম রাত কাটছিলো
উহানের উচ্যাং হাসপাতালের পরিচালক লিউ ঝিমিংয়েরও। এ লড়াইয়ে নেতৃত্বে থেকে সবাইকে প্রেরণা যোগাচ্ছিলেন তিনি।কিন্তু প্রা;;ণঘাতী ভাইরাস একসময় জেঁকে বসলো তার শরীরেও। অনেক রোগী তার হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরলেও পারলেন না লিউ। হেরে গেলেন তিনি, করোনাভাইরাস কেড়ে নিয়েছে লিউ ঝিমিংয়ের প্রাণও।সোমবার (১৭ ফেব্রুয়রি)
চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃ;;ত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে চীনের কোনো

হাসপাতালের প্রধান হিসেবে প্রথম প্রাণ গেছে লিউ’র। গত শুক্রবার (১৪ফেব্রুয়ারি) এই হাসপাতালেরই লিউ ফ্যান নামে ৫৯ বছর বয়সী এক নার্স মা;;রা যান করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে।উচ্যাং হাসপাতালের সংশ্লিষ্টদের বরাত দিয়ে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, লিউ’র মৃ;;;ত্যুতে ভেঙে পড়েছেন তার সহকর্মী চিকিৎসকরা। একজন চিকিৎসক জানিয়েছেন, লিউ বেশ সুস্থ-সবল মানুষ ছিলেন। করোনাভাইরাস তাকেও কেড়ে নেবে,
ভাবতে পারছেন না কেউ।তবে তার মৃ;;ত্যু নিয়ে এখনো আনুষ্ঠানিক কোনো বিবৃতি দেয়নি উচ্যাং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।এর আগে নার্স লিউ ফ্যানের ‍মৃত্যুর বিষয়ে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম

জানায়, উহানে স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর ঘাটতি দেখা দিলে ওই নার্সও তা থেকে বঞ্চিত হন।
ফলে হাসপাতালে দায়িত্ব পালনকালে তিনি ভাইরাসে সংক্রমিত হন। ১৪ ফেব্রুয়ারি মা’’’রা যান তিনি।করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ড. লিউ’র আগে চীনে হাই-প্রোফাইল চিকিৎসক হিসেবে মা;;;রা যান উহান সেন্ট্রাল হাসপাতালের ডা. লি ওয়েনলিয়াং। ভাইরাসটি সম্পর্কে আগেই সতর্ক করে আলোচনায় এসেছিলেন তিনি। লি ওয়েনলিয়াং সতর্ক করে দিয়ে বলেছিলেন, সার্সের মতো মহামারি আকার ধারণ করতে পারে এই নতুন ভাইরাস। তবে তখন তার সে কথায় পাত্তা দেয়নি দেশটির কর্তৃপক্ষ। পাল্টা তাকে গু;;জব ছড়ানোর অভিযোগে হু;;মকি দেয়া হয়।এদিকে সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, নভেল করোনাভাইরাস থেকে সৃষ্ট

কোভিড-১৯ নামক রোগে আক্রান্ত হয়ে ১ হাজার ৭৭০ জন প্রাণ হারিয়েছেন। চীনের বাইরে হংকং, তাইওয়ান, জাপান, ফিলিপাইন ও ফ্রান্সে একজন করে মোট পাঁচজন মা;;রা গেছেন।এছাড়া ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ৭১ হাজার ৪৪০ জন। এর মধ্যে শুধু চীনেই আক্রান্তের সংখ্যা ৭০ হাজার ৫৪৮। চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ হাজার ৬১০ রোগী। বাণিজ্য, ব্যবসা আর পণ্য পরিবহনে গতি কমায় চীনসহ বিশ্ব অর্থনীতিও এখন করোনা আক্রান্ত হয়ে ধুঁকছে।

সংযুক্ত আরব আমিরাত- সৌদি প্রশংসায় পঞ্চমুখ ইভানকা ট্রাম্প

নারীর অধিকার প্রতিষ্ঠায় উল্লেখযোগ্য সংস্কার পদক্ষেপ নেয়ায় সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতকে প্রশংসায় ভাসিয়েছেন ইভানকা ট্রাম্প।বিদেশ ভ্রমণে নারীদের অনুমোদন ও পুরুষ আত্মীয়দের অনুমতি ছাড়াই পাসপোর্ট ইস্যুতে আইনে পরিবর্তন এনেছে সৌদি আরব। নারী স্বাধীনতার এই অগ্রগামী পদক্ষেপের জন্য সৌদি আরবকে অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।
দুবাইতে রোববার নারী উদ্যোক্তা ও আঞ্চলিক নেতাদের এক সমাবেশে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই কন্যা ও উপদেষ্টা বলেন, আমরা জানি, যখন নারীরা স্বাধীন থাকেন,

তখন তারা সফল হন, পরিবারে সমৃদ্ধি ঘটে, সম্প্রদায়গুলো বিকশিত হয় ও রাষ্ট্রগুলোও আরও শক্তিশালী হয়।এর আগে ২০১৮ সালে নারীদের গাড়ি চালানোর ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় সৌদি আরব। দেশটির ভিশন ২০৩০ সামনে রেখে এই পরিবর্তন আনা হয়েছে। মূলত তেল ওগ্যাসের ওপর থেকে নির্ভরশীলতা কমিয়ে অর্থনীতিতে আরও বৈচিত্র আনতে এসব পদক্ষেপ নিয়েছে সৌদি।এতে ব্যক্তিগত খাতের প্রবৃদ্ধি ও উদ্যোক্তা বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। সিংহাসনের উত্তরসূরি মোহাম্মদ বিন সালমানের উত্থানের সঙ্গে সঙ্গে সৌদিতে এসব পরিবর্তন ঘটছে।কেবল সৌদি আরবই না, অন্যান্য আরব দেশের পরিবর্তনের দিকেও আভাস

দিয়েছেন ট্রাম্প কন্যা।৩৮ বছর বয়সী এই নারী বলেন, কর্মক্ষেত্রে বৈষ;;ম্যের বি;;রুদ্ধে আইনপ্রণয়ন করেছে বাহরাইন। কর্মক্ষেত্রে রাতে নারীদের কাজের সক্ষমতার ওপর বিধিনিষেধ তুলে নিয়েছে জর্ডান।নারীদের ভূমি অধিকার বাড়িয়েছে মরোক্কো। আর গৃহ;;সহিংসতার বি;;রুদ্ধে নতুন আইন করেছে তিউনেশিয়া।তবে আরও বহু কাজ বাকি আছে বলে মনে করেন এই তিন সন্তানের জননী। ইভানকা বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে বর্তমানে গড়ে একজন পুরুষের তুলনায় নারীর অধিকার অর্ধেক।

যুক্তরাষ্ট্র করোনার ওষুধ বাজারে ছাড়ার ঘোষণা দিল

এতদিন নানাজনে নানা কথা বলেছে করোনা ভাইরাসের ওষুধ বা ভ্যাকসিন আবিষ্কার করা নিয়ে। এর মধ্যেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ঘোষণা দিলে, করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন বাজারে আনছে
তারা। এ বিষয়ের অনুমতিও মার্কিন সরকার দিয়ে দিয়েছে। রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্রের
চিকিৎসকদের সঙ্গে এ নিয়ে আলোচনা করে ওই বিভাগের প্রধান যুক্তরাষ্ট্রে কেন্দ্রীয় ওষুধ
প্রশাসনের কাছ থেকে পরীক্ষামূলকভাবে ‘রেমডেসিভির’ অ্যান্টিভাইরাল ওষুধ প্রয়োগের অনুমোদন পান।অনুমতি পাওয়ার পর তারা করোনা ভাইরাসের বি;রু;দ্ধে; একটি

অ্যান্টিভাইরালের ব্যবহার শুরুকরে। ওষুধটি তৈরি করে ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক গিলিড ফার্মাসিটিউক্যালস। অন্যদিকে ফ্যাপিলাভির নামে আরেকটি অ্যান্টিভাইরাল নভেল করোনা ভাইরাসের চিকিৎসা করতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করেছে চীন। চীনের ঝেঝিয়াং প্রদেশের সরকারও ফ্যাপিলাভির অ্যান্টিভাইরালটি বাজারজাতকরণের অনুমতি দিয়েছে।করোনা ভাইরাসের এটিই প্রথম কোনো প্রতিষেধক যা দেশটির ন্যাশনাল মেডিকেল প্রোডাক্টস অ্যাডমিনিস্ট্রেশনেরও অনুমোদন পেয়েছে।

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী : জানুয়ারিতেই অচ’ল হয়ে পড়েছে সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনা

কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মুহাম্মদ বিন আব্দুর রহমান বিন জাসিম আলে সানি বলেছেন,
সৌদি আরব এবং তার দেশের মধ্যে আঞ্চলিক তিক্ত দ্ব’ন্দ্ব মী’মাংসার জন্য যে আলোচনা চলছিল তা তেমন কোনো অগ্রগতি ছাড়াই জানুয়ারি মাসে স্থগিত হয়ে গেছে।গতকাল (শনিবার) জার্মানির মিউনিখ নি’রাপত্তা সম্মেলনে দেয়া বক্তৃতায় তিনি একথা জানান। আব্দুর রহমান বিন আলে সানি বলেন, “চলমান সং’কটের প্রায় তিন বছর হয়ে গেছে এবংআমরা কোনো অপরাধ করি নি কিন্তু তারপরও দুর্ভা’গ্যজনকভাবে সমস্যার সমাধান হয় নি।অথচ

আমরা সংকট সমাধানের ব্যাপারে খুবই উন্মু’ক্ত অবস্থান গ্রহণ করেছিলাম।” তিনি বলেন, আলোচনা স্থগিত হয়ে যাওয়ার ব্যাপারে কাতার কোনভাবেই দায়ী নয়। গত অক্টোবর মাসে সৌদি আরবের সঙ্গে কাতারের আলোচনা শুরু হয়।২০১৭ সালের ৫ জুন সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত এবং বাহরাইন সম্মিলিতভাবে কাতারের ওপর সর্বাত্মক অবরোধ আরাপ করে এবং এ নিয়ে কাতারের সঙ্গে সৌদি নেতৃত্বাধীন দেশগুলোর মারাত্মক রকমের তিক্ততা সৃষ্টি হয়।সৌদি আরব ও তার মিত্ররা কাতারের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে সমর্থন দেয়ার অভিযোগ

করে আসছিল যা জোরালো ভাষায় প্রত্যাখ্যান করেছে দোহা। এসব দেশ দা’বি করেছিল যে, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সঙ্গে কাতারের সম্প’র্ক ছি’ন্ন করতে হবে এবং কাতারে তুরস্কের সামরিক ঘাঁটি ব’ন্ধ করে দিতে হবে। দোহা এসমস্ত দাবি সরাসরি নাকচ করে দিয়েছে। কাতার সরকার বলেছে, “আমরা কার সঙ্গে সম্পর্ক রাখব আর কোন দেশের ঘাঁটি কাতারে থাকবে সেটি দোহা স্বাধীনভাবে সিদ্ধা’ন্ত নেবে, কারো চাপিয়ে দেয়া সিদ্ধা’ন্ত আমরা গ্রহণ করব না।”#পার্সটুডে

করোনা ভাইরাসে টিকা তৈরি হল মাত্র তিন ঘণ্টায়

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সান দিয়েগো ল্যাবের গবেষকরা জানিয়েছেন, মাত্র তিন ঘণ্টায় তার করোনাভাইরাসের পরীক্ষামূলক একটি ভ্যাকসিন তৈরি করেছেন। করোনার বিরুদ্ধে এটি ভালো কাজ করবে। ইনোভিও ফার্মাসিউটিক্যালস এখন এটি নিয়ে আরো পরীক্ষা চালাবে। প্রথমে কোনা প্রাণীর ওপর, তারপরে মানুষের ওপর এই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করে পরীক্ষা করা হবে। পরীক্ষা শেষ করতে কয়েক মাস সময় লাগতে পারে। তারা জানান, প্রাণীর ও মানুষের ওপর

পরীক্ষা করার পর সফল হলে খুব শিগগিরই এই ভ্যাকসিনটি বাজারে পাওয়া যাবে। তারা আশা করছেন, এই ভ্যাকসিনটি ভালো কাজ করবে। সেই সঙ্গে তারা সফলও হবে বলে আশা করেন। এর আগে চীনা বিজ্ঞানীরা ৯ জানুয়ারি করোনাভাইরাসটির জেনেটিক সিকোয়েন্স প্রকাশ করেছিলেন। পরে ইনোভিও এবং বিশ্বের অন্যান্য ল্যাবগুলোর গবেষকরা করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন তৈরি করার জন্য তাত্ক্ষণিকভাবে কাজ শুরু করেছিলেন।

দুই হাজার চিকিৎসক চীনে করোনাভাইরাসে আক্রা’ন্ত

করোনাভাইরাসে মৃ;;;ত্যুর মিছিলের মধ্যেই ভাইরাস মোকাবিলায় নতুন করে সঙ্কটে পড়েছে চীন।এখন পর্যন্ত চীনে করোনাভাইরাসে প্রথমসারির প্রায় দুই হাজার চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন।করোনাভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসায় আরও সতর্কতা অবলম্বন করা উচিৎ বলে মত বিশেষজ্ঞদের।প্রতিদিনই আশঙ্কাজনকহারে বেড়েই চলেছে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃ;;তের সংখ্যা। আক্রান্তদের সেবায় দিনরাত নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছেনচিকিৎসাকর্মীরা। করোনা আক্রান্তদের সেবা করতে গিয়ে প্রা;ণঘা;তী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন অসংখ্য

চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীও।তারাও এখন কোয়ারান্টাইনে আছেন। করোনায় আক্রান্ত হয়ে বেশ কয়েকজন চিকিৎসক মৃ;;;ত্যুবরণ করেছেন বলে জানিয়েছে গণমাধ্যম।চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য দফতরের তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত দেশটিতে প্রায় দুই হাজার চিকিৎসাকর্মী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। যাদের প্রায় ৯০ শতাংশই হুবেই প্রদেশের।এরমধ্যে আবার শুধু ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল উহানেই আক্রান্ত হয়েছেন ১১শ স্বাস্থ্যকর্মী। ১কোটি দশ লাখ মানুষের উহান শহরে প্রায় ৪শ’ হাসপাতাল ও ৬ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক রয়েছে।এরমধ্যে বেশ কয়েকটি হাসপাতালকে শুধু করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য নির্দিষ্ট করে দেয়া হলেও দিন

দিন রোগীয় সংখ্যা বাড়ায় চাপ বাড়ছে হাসপাতালগুলোতে।হাসপাতাল ও ক্লিনিকগুলোতে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামাদির অপ্রতুলতায় হিমশিম খাচ্ছেন চিকিৎসক স্বাস্থ্যকর্মীরা। মাস্ক, প্রোটেক্টিভ স্যুট ও গ্লাসের অপ্রতুলতা ছাড়াও বিভিন্ন সীমাবদ্ধতার কথা স্বীকার করেছে উহান প্রশাসন।তবে প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি ফুরিয়ে যাওয়ার আগে থেকেই অসতর্কতার কারণে চিকিৎসকদের মধ্যে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এজন্য করোনা প্রাদুর্ভাবের শুরুর দিকে ভাইরাস নিয়ে সরকারের গাফিলতিকেই দায়ী করছেন বিশ্লেষকরা।

সফলতার দাবি-৩ হাজার বছরের পুরনো ওষুধে করোনা চিকিৎসা শুরু চীনে!

প্রাচীন আমল থেকে নানা জড়িবুটির মাধ্যমে চিকিৎসার জন্যে চীন বিখ্যাত। এখন চীনে নতুন
সংকট করোনা ভাইরাস। ইতোমধ্যে করোনা ভাইরাসে মারা গেছেন বিশ হাজারেরও বেশি চীনা নাগরিক।করোনার হাত থেকে রক্ষা পেতে আবার প্রাচীন ওষুধের শরণাপন্ন হয়েছেন চাইনিজ চিকিৎসকরা। তিন হাজার বছরের পুরোনো একটি ঐতিহ্যবাহী ওষুধ দিয়ে করোনার চিকিৎসা শুরু করেছেন তারা।চীনের হুবেই প্রদেশের স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান ওয়াং হেশেং জানান, চীনের

উহানের হাসপাতালেইতোমধ্যেই প্রায় ৩০০০ বছরের পুরনো ঐতিহ্যবাহী চীনা ওষুধের ব্যবহার করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু করেছেন চিকিৎসকরা। হেশেং জানান, ইতোমধ্যে ট্র্যাডিশনাল চাইনিজ মেডিসিন (TCM) এর বিশেষজ্ঞদের ২,২০০ জনের একটি দল পৌঁছে গিয়েছে হুবেই প্রদেশে। যেখান থেকে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়েছিল এই করোনাভাইরাস।